আমার আমি

২৮ লাখের টেক্সাসের বাহাদুর গরুর ক্রেতাকে সম্মাননা দিন বা তিরস্কার করুন!

Grilled Radicchio Salad

যিনি কিনেছেন-
তিনি যদি চাকরিজীবি হোন- 
(সেটা সম্ভব না যদি ও বৈধভাবে!) 
সচিব মহোদয়েরই স্যালারী বেসিক যেখানে ৭৮,০০০/ টাকা! দেখুন উনারা কেউ নাকি!
যদি হয় বিবেচনা করুন!

যদি ইন্ড্রাস্টিয়ালিস্ট হোন- 
দেখুন উনার ট্যাক্স পেমেন্ট ঠিক আছে কিনা! 
সরকারের কড়াকড়ি কিংবা আইনের ঝামেলা নেই এমন প্লেস এ লুকানো অর্থকড়ি আছে কিনা! এ ক্ষেত্রে ‘অফশোর ফিন্যান্সিয়াল সেন্টার’ যার সোজা অর্থ- কর ফাঁকির নিরাপদ আস্তানা, যেমন– ব্রিটেনের আওতাধীন ভার্জিন আইল্যান্ডস, ল্যাটিন আমেরিকার পানামা, ক্যারিবীয় দ্বীপ বাহামা, হংকংয়ের ম্যাকাও প্রভৃতি স্থানে কি কি আছে!

পানামা পেপারস এ নাম আছে কিনা!

বিশাল ব্যবসায়ী মহোদয়ের Shell company বা ভূয়া কোম্পানী কয়টি! হলমার্ক না তো! তিনিও ৫০-৬০ টি গরু দিতেন!

দেখুন – উনি ঋণ খেলাপী না ব্যাংক উনাকে পাচ্ছে না! জনগনের কত টাকা উনি লগ্নী করে ফেরত দিচ্ছেন না!

শেয়ার মার্কেটের ফটকাবাজ কোটিপতি ২৮ লাখ টাকা দিলেন না তো আবার!

ইমপোর্ট – এক্সপোর্ট ব্যবসায়ী হিসেবে নষ্ট যন্ত্রাংশ ডিক্লারেশন দিয়ে আস্ত BMW গাড়ী আনেন নি তো!

গার্মেন্টস ব্যবসায়ীটা কর্মচারীর শেষ মাসের মজুরি টা দিয়েছেন তো!
নাকি গার্মেন্টস কন্যার ৫০০০ টাকা উনার ২৮ লাখ টাকায় দিয়ে দিয়েছেন!

প্রবাসীর টাকা টা বৈধ চ্যানেলে দিয়েছেন!
“হুন্ডি” না তো!

বহুজাতিক কোম্পানির দামী কর্মকর্তা বৈধভাবে আমাদের দেশে বেতন নিচ্ছেন তো! 
আমরা ছা-পোষার প্রতিমাসের স্যালারি ট্যাক্স দিয়ে দেই! উনারে কিভাবে দ্যান!

আগেই স্যালারি মূল অর্থ রেখে অন্য খাতের অর্জনে স্যালারি ট্যাক্স দেন না তো!

সব দেখে ভাল হলে অবশ্যই উনাকে ” Rewarded” করতে হবে!

“Sacrificial cow” দেয়ার ক্ষেত্রে মন মানসিকতার উদারতার জন্য..

ভাল উদ্দেশ্যের জন্য..

ধর্মীয় পালনে যথাযথ সম্মানের জন্য…

কিছু এতিম-দুস্থকে দুবেলা পেটভরে খাওয়ানোর জন্য!

আর না হলে তিরস্কার করুন-

এ মন্দ চর্চার জন্য!

এ লোক দেখানো ভাবের জন্য!

২৮ লাখ টাকায় ২৮ টা গরু দিয়ে সেবা বেশি না করার জন্য!

উনার অর্থের উৎস ” কতভাবে” আসে দেখুন!

কিছু একটা করুন!

পুরস্কৃত বা তিরস্কৃত!

নয়তো অদূর ভবিষ্যৎতে টেক্সাস গরুই বাংলাদেশে থাকবে!

লালমনিরহাটের রহিমুদ্দি বা ছলিমুদ্দিনের না!

কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘আল্লাহর কাছে পৌঁছায় না তাদের (কোরবানির) গোশত এবং রক্ত; বরং পৌঁছায় তোমাদের তাকওয়া। 
(সূরা আল-হজ, আয়াত ৩৭)