ইচ্ছে ডায়েরী

Wedding Photography And Journey of Suffe(Ring)! 

Grilled Radicchio Salad

Wedding Photography And Journey of Suffe(Ring)!
( Inspired by True incident) 

বিয়েতে আমার মতে তিনটা রিং!
Enggagement Ring -Wedding Ring -Third Ring – SuffeRing!

আর Suffering এর আরম্ভ :- ওয়েডিং ফটোগ্রাফি!

সেদিন বিয়ের দাওয়াতে গেলাম,

ওয়েডিং ফটোগ্রাফার তখন তার বেস্ট ক্যাপচার নিয়ে নিবেন, তার তীব্র প্রচেষ্টা চলছিল!

আমি তাকে দেখছিলাম!

আমার ধারণা :-

বিয়েতে সাধারণত : ছেলেদের ছবি ভাল আসেনা!
ওই ব্যাটার থাকে দুনিয়ার টেনশন- কত টাকা গেল! লোন করলো কত! বাসা কই নিবে! শ্বশুরকুল কি ভাবে না ভাবে! বাবা- মা অভিমান করছে না তো!
কে কে বাদ পড়লো! নানা চিন্তা বেচারার!
( বাপের টাকা দিয়ে না করলে তো টেনশন আরো বেশি)!

এমন টেনশনে তার ” বেস্ট শট না আসারই কথা!
যা হোক, ঘটনায় চলে আসি-

দৃশ্য ১ :- ছবি টা ফটোগ্রাফার চাচ্ছেন এমন যে জামাই ঈষৎ বাঁকা হয়ে বউয়ের দিকে দেখবেন – এক পাশ থেকে! –
অনেকটা ” না জানি কেন রে এতদিন পরে জাগিয়া উঠিল প্রাণ” টাইপ ইমোশন দিতে হবে!

কিন্তু, কোন ভাবেই তার বাঁকানো ঠিক হয় না! ৯০ডিগ্রী, ১৮০ ডিগ্রী সব ট্রাই করা হল! ফটোগ্রাফার খুশি নন! ৭ টা টেক নেয়া হল!

দৃশ্য ২ :- আয়নায় জামাই বঊ দুজনের চেহারা এক সাথে দেখা যাবে – এবং আয়না থাকবে জামাই এর হাতে! সম্যসা হচ্ছে বউ হেলদি একটু, দুজনের চেহারার কম্বিনেশন এ জামাই আয়নাতে আসতে তেমন একটা পারলো না,
আর হাসি মুখ তো
“দূর কি ব্যাত হ্যায়” -এটাও ভালো হল না!

দৃশ্য- ৩ মুখে হাসি নিয়ে জামাই বউয়ের হাতটা হালকা ভাবে ধরে তার কাচের চুড়ি নাড়ানাড়ি করবে! বউ জামাইয়ের দিখে থাকিয়ে থাকবে! –
“অনূভুতি হবে পাখির নীড়ের মতো চোখ তুলে নাটোরের বনলতা সেন” এ ছিল পোজ -! ছবি তোলা হল!

অদক্ষ জামাই এতেও ফেইল!
বোঝলাম- কপালে তোর মাইর আছে ব্যাটা!

Marriage has many pains! – You know!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *